Public Administration Subject Review In Bangla

0
0

লোক প্রশাসন (Public Administration) বিভাগটি কেমন? এটি কি ফর্সা না কালো, টক নাকি মিষ্টি ? এই বিভাগে কেন পড়ব/কেন পড়ব না? এখানে পড়লে কি ধরনের চাকুরী হবে? এই সব প্রশ্নের উত্তর দেয়ার আগে লোক প্রশাসন আসলে কি সেই ব্যাপারটি পরিষ্কার করার প্রয়োজনীয়তা বোধ করছি। কারন বিভাগ হিসেবে এই সাবজেক্টটি কিছুটা আনকমন
এবং স্কুল – কলেজের গন্ডির মধ্যে কোথাও পাব্লিক এডমিনিস্ট্রেশন নামের কিছু ছিলো না বলে অনেকেই বিভাগটির সম্পর্কে স্বচ্ছ ধারনা রাখেন না। প্রথমেই বলা প্রয়োজন যে, পাব্লিক কথাটির অর্থ হচ্ছে গভর্মেন্ট, এই যে আপনি পাব্লিক ভার্সিটি অর্থাৎ গভর্মেন্ট ভার্সিটিতে পড়ছেন/পড়তে যাচ্ছেন সেই গভর্মেন্ট। সুতরাং পাব্লিক এডমিনিস্ট্রেশন মানে হচ্ছে গভর্মেন্ট এডমিনিস্ট্রেশন। সরকারের পলিসি প্ল্যানিং থেকে পলিসি ফর্মুলেশন, সরকারি প্রশাসনের রক্ষনাবেক্ষন এবং ম্যানেজমেন্ট ,রাষ্ট্রবিজ্ঞান, আইন ইত্যাদি হচ্ছে লোক প্রশাসনের ফোকাস এরিয়া। মোটা দাগে বলতে গেলে লোক প্রশাসনের কেন্দ্রবিন্দু হচ্ছে সরকার এবং সরকারের কার্যক্রমের এমন কোন বিশেষ জায়গা নেই যেটি লোক প্রশাসনের বহির্ভূত। যেকোন প্রতিষ্ঠানের সফলতা / ব্যর্থতা নির্ভর করে একজন প্রশাসকের উপরে। একজন দক্ষ প্রশাসককে তাই হতে হয় একজন
মাল্টিডিসিপ্লিনারি মানুষ। তাই পাব্লিক এডমিনিষ্ট্রেশন বিভাগে পড়ানো হয় কিভাবে একজন দক্ষ প্রশাসক হতে হয়; স্বভাবতই পাব্লিক এডমিনিষ্ট্রেশন বিভাগে পড়লে আপনাকে শিখতে হবে সমাজবিজ্ঞান, ম্যানেজমেন্ট সহ সংশ্লিষ্ট প্রায় অধিকাংশ মৌলিক বিষয়

এবার চাকুরীর বাজারে আসা যাক।প্রতিটি প্রতিষ্ঠানেই রয়েছে এডমিনিস্ট্রেশন।
সুতরাং, পাব্লিক এডমিনিশট্রেশন এর পরিসর অত্যন্ত বিস্তৃত।বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবজেক্টগুলোর মধ্যে একমাত্র পাব্লিক এডমিনিস্ট্রেশন সাবজেক্টের নামেই একটি মন্ত্রনালয় আছে এবং সেই জনপ্রশাসন মন্ত্রনালয়ে(Ministry of Public Administration) পাব্লিক এডমিনিস্ট্রেশন পড়ুয়া ছাত্রছাত্রীদের জন্য রয়েছে লোভনীয় পদে চাকুরীর সুযোগ। এছাড়া বিশেষ সুযোগ রয়েছে সরকারি কর্ম কমিশনে। বিসিএসে যতগুলো ক্যাডার রয়েছে এর মধ্যে প্রশাসন, পুলিশ, সিভিল সার্ভিস ক্যাডারে চাকরি পান এ বিভাগের ছাত্রছাত্রীরা। এ ছাড়া দেশের সরকারি-বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের মানবসম্পদ ব্যবস্থাপনা, প্রশাসন, প্রশিক্ষণ, গবেষণা ইত্যাদি বিভাগে তাঁরা অগ্রাধিকার পেয়ে থাকেন।বাংলাদেশে নিযুক্ত বিভিন্ন মাল্টি ন্যাশনাল কোম্পানী, মানবাধিকার সংস্থা,বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংগঠন,
ব্যাংক, বিমা, বিভিন্ন এনজিওতে এ বিভাগের ছেলেমেয়েরা ভালো বেতনে কাজ করছেন। অনেকে আবার কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক হিসেবে শিক্ষকতা পেশায় চাকরি করছেন। দেশের বাইরে যেমন যুক্তরাজ্য, আমেরিকা, অস্ট্রেলিয়া কানাডাসহ বিভিন্ন দেশে এ বিভাগের ডিগ্রিধারীরা এখন ভালো বেতনে কাজ করার সুযোগ পাচ্ছেন|

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here